বিনোদন

গুরুতর অসুস্থ হয়ে সিসিইউতে কবীর সুমন

গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কবীর সুমন। সোমবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুর ৩টার দিকে এক ফেসবুক পোস্টে এ তথ্য জানিয়েছেন শিল্পীর ঘনিষ্ঠজন মনীষা দাশগুপ্ত।

মনীষা দাশগুপ্ত তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘কবীর সুমন শ্বাসকষ্ট নিয়ে আজ সকালে কলকাতা মেডিকেল কলেজে ভর্তি হয়েছেন। চিকিৎসা চলছে। ডাক্তারদের নির্দেশে দেখা করার ওপর বিধিনিষেধ রয়েছে।’

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, শ্বাসকষ্ট, গলাব্যথা ও জ্বর নিয়ে সোমবার দুপুরে হাসপাতালে ভর্তি হন কবীর সুমন। তাকে কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে। তার চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে চার সদস্য বিশিষ্ট মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের নভেম্বরে সর্বশেষ ঢাকায় আসেন কবীর সুমন। সেবার চার দিনের বাংলা খেয়াল কর্মশালার জন্য ঢাকায় আসেন তিনি। এর আগে ২০২২ সালের অক্টোবরে ঢাকায় এসেছিলেন তিনি।

কবীর সুমন একাধারে গায়ক, গীতিকার ও অভিনেতা হিসিবে সবার মন জয় করেছেন। তার পূর্বনাম ‘সুমন চট্টোপাধ্যায়’। ২০০০ সালে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হয়ে তিনি তার পুরোনো নাম পরিত্যাগ করেন। তিনি আধুনিক ও রবীন্দ্রসংগীত দুই ধারার গান পরিবেশন করে সুনাম কুড়িয়েছেন।

১৯৯২ সালে কবীর সুমন ‘তোমাকে চাই’ অ্যালবামের মাধ্যমে তিনি বাংলা গানে এক নতুন ধারার প্রবর্তন করেন। তার লেখা গানের অ্যালবামের সংখ্যা ১৫টিরও বেশি।

কবীর সুমন সংগীতচর্চার পাশাপাশি প্রবন্ধ, উপন্যাস ও ছোটোগল্পের রচয়িতা হিসেবেও পাঠকের মন জয় করেছেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় ইস্যু নিয়ে কথা বলেন।

ভারতে নন্দীগ্রাম গণহত্যার পরিপ্রেক্ষিতে কৃষিজমি রক্ষার ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত আন্দোলনে তিনি সক্রিয়ভাবে যোগদান করেন এবং সেই সূত্রে সক্রিয় রাজনীতিতে তার আবির্ভাব ঘটে।

কবীর সুমন ২০০৯ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে দেশের পঞ্চদশ লোকসভা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন ও জয়লাভ করে ওই কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আরও পড়ুন:

Back to top button